একবছর ধরে সহবাস করেও বিবাহ করতে অস্বীকার করায়  গ্রেফতার অভিযুক্ত যুবক ও তার বন্ধু

আমার বাংলা, গলসি ঃ   একবছর ধরে এক যুবতির  সাথে মেলামেশা এবং সহবাস করার পরে বিয়ে করতে অস্বীকার করায় অভিযুক্ত যুবক ও তার বন্ধুকে ধরে পুলিশের হাতে তুলে দিল গ্রামবাসীরা।স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে গ্রামবাসীদের অপছন্দের লাগতে থাকে  এই মেলামেশা এবং কানাঘুষোয় শোনা সহবাসের কথা । গতকাল সন্ধ্যায় যুবক এবং তার বন্ধু যুবতির কাছে এলে পরিবার এবং গ্রামবাসীদের পক্ষ থেকে যুবককে বিবাহ করতে বলা হয় । অভিযোগ বিবাহ করতে অস্বীকার করে যুবক । এরপর ক্ষুব্ধ গ্রামবাসীরা যুবক এবং তার সাথে আসা বন্ধুকে আটকে রাখে সারারাত । আজ বেলার দিকেও যুবককে বিবাহের জন্য রাজি করানোর চেষ্টা করে গ্রামবাসীরা  । যুবক বিবাহ করতে অস্বীকার করলে গ্রামবাসিরা যুবককে পুলিশের হাতে তুলে দেয় । পুলিশ দুই যুবককে গ্রেফতার করে । ঘটনাটি ঘটে গলসি থানার আটপাড়া গ্রামে ।পুলিশ এবং গ্রামবাসীদের সুত্রে জানা যায় আটপাড়া গ্রামের এক অবিবাহিত যুবতির সাথে পরিচয় এবং ঘনিষ্ঠতা বাড়ে গলসি থানার মনহোর – সুজাপুর গ্রামের বাসিন্দা শেখ টোটোনের সাথে । সম্পর্ক ভালবাসায় পরিনত হয় । অভিযোগ বিবাহের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ওই মেয়েটির সাথে  সহবাস শুরু করে যুবকটি  । যুবক  প্রায়ই মেয়েটির বাড়িতে যাতায়াত করতে থাকে ।পরিবার এবং গ্রামবাসীদের অভিযোগ যুবক শেখ টোটোন  বিবাহিত এই বিষয়টি গোপন করে মেয়েটির এবং মেয়ের পরিবারের কাছে । সহবাস করার সময় বিবাহের প্রতিশ্রুতি দেওয়ার সাথে সাথে নানারকম সুখী জীবনযাপনের স্বপ্ন দেখাতে থাকে মেয়েটিকে ।

গ্রামবাসীদের পক্ষ থেকে অভিযোগ মেয়েটির সাথে মেলামেশা গ্রাম্যজীবনের শালীনতা ছাড়িয়ে যাচ্ছিল ।গ্রামবাসীদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে তারা কয়েকদিন ধরেই যুবককে বিবাহের বিষয়ে বলার চেষ্টা করা হচ্ছিল কিন্তু সেখ টোটোন এড়িয়ে যেতে থাকে গ্রামবাসীদের । এরপর গতকাল রবিবার সন্ধ্যর সময় সেখ টোটোন এবং তার বন্ধু সেখ নাজির মল্লিক মেয়েটির বাড়িতে এলে গ্রামবাসীরা জড়ো হয়ে বিবাহের কথা বলে যুবকটিকে । যুবক বিবাহ করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে পালিয়ে যাওয়ার ফন্দি  আঁটে । গ্রামবাসীরা বুঝতে পেরে সেখ টোটোনকে আটকে রাখে । তখনই জানা যায় সেখ টোটোন বিবাহিত ।

গ্রামবাসীরা বিবাহের জন্য রাজী করানোর চেষ্টা করলেও সেখ টোটোন রাজী না হওয়ায় আজ বেলার দিকে গ্রামবাসীরা সেখ টোটোন এবং সেখ নাজির মল্লিককে গলসি থানার হাতে তুলে দেয় ।গলসি পুলিশ সুত্রে বলা যুবতির অভিযোগের ভিত্তিতে সেখ টোটোন এবং সেখ নাজির মল্লিককে সহবাস করে বিবাহ করতে রাজি না হওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে ।

Leave a Reply