কংগ্রেস ও ফরওয়ার্ড ব্লক ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেওয়ার হিড়িক নেতাদের

শুক্রবার সংস্কৃতি লোকমঞ্চে দলের এক বিশেষ কর্মী সভায় জেলা কংগ্রেসের  এক প্রাক্তন সভাপতি আজিজুল হক মন্ডল   সহ ২২ জন ব্লক সভাপতি এবং ফরওয়ার্ড ব্লকের প্রাক্তন বিধায়ক আজিজুল হক মন্ডল সহ ২১ জন সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য তৃণমূলে যোগ দান করেন। তাদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন মন্ত্রী। পাশাপাশি গোটা জেলা থেকে কংগ্রেস এবং বামফ্রন্টের হাজার হাজার সমর্থক তৃণমূলে যোগ দেওয়ার জন্য আবেদন করেছেন তাদেরও এদিন দলে নেওয়ার কথা ঘোষণা করেন অরূপ বাবু।  তৃণমূলে যোগ দিয়ে আজিজুল বাবু বলেন সিপিএমের বিরুদ্ধে ছাত্রজীবন থেকে আমরা আন্দোলন করে আসছি। এই সিপিএমের সাথে গত বিধানসভায় কংগ্রেসের জোট বাঁধা আমরা হাজার হাজার কংগ্রেসিরা মেনে নিতে পারিনি। পাশাপাশি তৃণমূল ক্ষমতায় আসার পরে রাজ্য জুড়ে যে উন্নয়নের কর্মযজ্ঞ চলছে  তা দেখে উন্নয়নকে আরো এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য তৃণমূলে আমরা যোগ দিলাম। প্রাক্তন বিধায়ক মেহেবুব মন্ডল বলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আমাদের রাজ্য বাসীকে পথ দেখাচ্ছেন। রাজ্য জুড়ে উন্নয়নের যে বাতাবরণ তৈরি হয়েছে তা দেখে আমরা উদ্বুদ্ধ হয়ে তৃণমূলে যোগ দিলাম।  বিধায়ক রবিরঞ্জন চট্টোপাধ্যায় বলেন এতদিনে আজিজুল, মেহেবুবরা সঠিক পথ চিনতে পেরেছেন। মন্ত্রী তথা তৃণমূলের জেলা সভাপতি স্বপন দেবনাথ বলেন  প্রতিদিমন তৃণমূলে যোগ দেওয়ার জন্য  দলের  সমস্ত স্তরে প্রচুর আবেদন জমা পড়ছে।  তৃণমূলে যোগ দেওয়ার এই হিড়িকে জেলায় সিপিএমের আর অস্তিত্ব থাকবে বলে মনে হয় না। মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস বলেন আজিজুল, মেহবুবরা বলছিলেন  মমতা ব্যানার্জীর নীতি ও আদর্শকে পাথেয় করে  তার উন্নয়নের পথে  যে রাস্তা দিয়ে তিনি টর্চ লাইট ধরেছেন  সেই পথ ধরে আমরা চলতে চাই।  একসময় বর্ধমান কে বলা হতো কমরেডদের জায়গা। বিনয় কোঙার, বিনয় চৌধুরি, পরবর্তীকালে একজন শাহেনশা হয়েছিলেন সেই   নিরুপম সেনরা আজ কোথাও।  সেই বর্ধমানে আজ আর লাল পতাকা দেখা যায় না।  শোনা যায় তৃনমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কথা।  আজ মমতা যা বলেন আগামী কাল ভারত নয় গোটা বিশ্ব সেই কথা বলবে। আগামী ১৪ সেপ্টেম্বর সিঙ্গুর দিবসে ২১ জুলাইয়ে শহীদ দিবসের তর্পণের মতো  বর্ধমান থেকে দুই লক্ষ মানুষ নিয়ে গিয়ে সিঙ্গুরে গিয়ে বলবো মমতা ব্যানার্জী তোমায় স্যালুট জানাতে এসেছি প্রণাম জানাতে এসেছি।  তিনি বলেন আমাদের লক্ষ্য ২০১৯ । পশ্চিমবঙ্গ থেকে মমতা ব্যানার্জীকে ভারতে পৌছে দিতে চাই।

Leave a Reply