দুর্গাপুরে চিকিৎসা করাতে এসে ছাদ থেকে পড়ে গিয়ে রহস্যমৃত্যু ভুটানীর

আমার বাংলা ডেক্স ঃ দুর্গাপুরে এক শিশুর চিকিৎসা করাতে এসে চার তলা ছাদ থেকে পড়ে গিয়ে মৃত্যু হলো এক ভুটানীর। ঘটনার জেরে দুর্গাপুরের বিধাননগর  এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। খবর পেয়ে আজ সকালেই দুর্গাপুরে চলে আসেন ভুটানের দূতাবাসের এক প্রতিনিধি দল।

পুলিশ জানিয়েছে মৃত ওই ভুটানবাসীর নাম সিংভির তামাং (৪০)। তিনি ভুটানের চিরিং জেলার বাসিন্দা।তিনি সেখানে চাষবাস করতেন।  গত শনিবার সিংভির তামাং তার দিদি সীতামায়া তামাং এর সাথে দুর্গাপুরের বিধাননগর এলাকায় একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে আসেন। সেখানে তার দিদির ১০ দিনের শিশুকে ভরতি করা হয় হার্ট অপারেশনের জন্য। এদিকে ওই বেসরকারি হাসপাতালের পাশেই একটা চারতলা লজে তারা ভাড়া নিয়ে থাকছিলেন।সোমবার রাতের দিকে সিংভির তামাং ছাদে গিয়েছিলেন। তার কিছুক্ষণ পড়েই ওই লজের তলায় তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। কিভাবে তিনি ছাদ থেকে পড়ে গেলেন তা তিনি রহস্য দানা বেঁধেছে। খবর পাওয়ার পরেই নিউ টাউন শিপ থানার পুলিশ দেহটি উদ্ধার করে নিয়ে যায়। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। এদিকে এই ঘটনার খবর জানতে পেরেই সকালে দুর্গাপুরে ছুটে আসেন ভুটানের দূতাবাসের দুই সদস্যের এক প্রতিনিধি দল। তারা এসে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলেন। ঘুরে দেখেন সেই জায়গাটিও যেখানে সিংভির মৃতদেহ পড়ে ছিল। জানা গেছে গত ফেব্রুয়ারি মাসে সিংভির স্ত্রী মারা যান। তারপর থেকেই তিনি অসুস্থ ছিলেন।

Leave a Reply