দুর্গাপুরে সোনার দোকানে কর্মীদের মারধর করে দুঃসাহসিক ডাকাতি

 

রাত তখন দুটো। দুর্গাপুর ইস্পাত নগরীর আশিস মার্কেটের সামনে তখন গভীর ঘুমে আচ্ছন্ন সেখানকার একটা মিষ্টির  দোকানের দুই কর্মী রাজা মজুমদার ও সমর হাজরা। হঠাত তাদের ঘুম থেকে তুলেই মারধর করতে থাকে ১০ -১২ জনের একটা দুষ্কৃতী দল। প্রথম মার খেয়ে হতচকিত হয়ে যায় তারা। পরে দেখতে পায় তাদের মুখে কালো কাপড় বাঁধা । তাদের মারধর করার পরে স্থানীয় একটা জঙ্গলে নিয়ে যায় ডাকাতেরা। এরপরেই তারা সোনার দোকানের শাটার ভেঙে ২৫ থেকে ৩০ লক্ষ টাকার গহনা নিয়ে চম্পট দেয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে ডাকাত  দলটি ওই মার্কেটের  সোনার দোকানে গ্যাস কাটার দিয়ে দোকনের সাটার কেটে দোকানে ঢুকে সিসিটিভির তার কেটে দেয়। এরপর তারা আনুমানিক ২৫ লক্ষ থেকে ৩০ লক্ষ টাকার সোনার গয়না, দেড় লক্ষ টাকা নগদ অর্থ সাথে সিসিটিভির হার্ড ডিস্ক নিয়ে চম্পট দেয়।

রাজা মজুমদারের বলেন  তারা রাতে দোকানের সামনে যখন তিনি ও সমর হাজরা ঘুমিয়ে ছিলেন তখন ডাকাতের দল এসে তাদের মারধর করে আশীষ মার্কেট সন্নিহিত রাণাপ্রতাপের ১২ নং স্ট্রিটে নিয়ে গিয়ে স্থানীয় জঙ্গলে হাত পা বেঁধে ফেলে রেখে দেয়। সারা রাত তারা একটি বাইকের যাওয়া আসার শব্দ শুনতে পান। এরপর ভোর হতেই কোনোক্রমে তারা হাতের বাঁধন খুলে আশেপাশের বাসিন্দাদের খবর দেন। খবর যায় দুর্গাপুর থানায়।  পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

 

Leave a Reply