নতুন জেলার পরিকাঠামো দেখে খুশি জেলাশাসক

এবি ওয়েব ডেক্স, আসানসোল :  সোমবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছেন আগামী পয়লা বৈশাখ আসানসোল নতুন জেলা হবে। ঘোষণার পর থেকেই শুরু হয়েছে খুশির হাওয়া। আজ আসানসোলে জেলার যে পরিকাঠামো ঠিকঠাক আছে কিনা তা পরিদর্শনে যান জেলাশাসক সৌমিত্র মোহন। কয়েকদিনের মধ্যেই আসানসোলে আসার কথা রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিব মলয় দের। এদিন আসানসোলের কল্যানপুর হাউজিং সহ বিভিন্ন সরকারি জায়গা ঘুরে দেখেন। পরে পরিকাঠামো নিয়ে তিনি সন্তুষ্ট বলে জানান জেলাশাসক। রাজ্যে পালাবদলের পরে আসানসোলকে আলাদা জেলা করা হবে বলে ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। তার প্রস্তুতিও ধীরে ধীরে শুরু হয়ে যায়। আসানসোল মহকুমা হাসপাতালকে জেলা হাসপাতালে উন্নীত করা হয়। মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকের জন্য ভবন নির্মাণ করা হয়। করা হয় আলাদা ভাবে আদালত ভবনও। ইতিমধ্যেই আদালতের প্রশাসনিক ভবনের নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে। হাইকোর্টের বিচারপতি এসে সেই কাজ ঘুরে দেখে গেছেন। শুধু তাই নয় জেলা হওয়ার জন্য যে সব প্রশাসনিক ভবনের প্রয়োজন সেই সব ভবন কিছু ভবন নির্মানের কাজও শুরু হয়েছে। তবে সদর কোথায় হবে আসানসোল না দুর্গাপুর তা নিয়ে ধন্দে শিল্পাঞ্চলবাসী। তবে যে প্রশাসনিক কাজকর্ম দেখে সাধারণ মানুষের ধারণা সদরের তকমা জুটতে পারে আসানসোলের কপালেই। এদিন বিভিন্ন জায়গা ঘুরে দেখার পরে জেলাশাসক সৌমিত্র মোহন জানান, নতুন জেলার জন্য যে সব পরিকাঠামোর প্রয়োজন্সেই সব সম্ভাব্য পরিকাঠামো আমরা ঘুরে ঘুরে দেখলাম। বেশ কিছু জায়গা বাছাই করে চিহ্নিত করা হয়েছে । এরপরে সেই অনুযায়ী প্ল্যান তৈরি করা হবে। তবে আসানসোল নতুন জেলা হলে তার জন্য যা যা পরিকাঠামো দরকার এখানে তার কোনো সমস্যা হবে না বলে জানান জেলাশাসক।

Leave a Reply