পাঁচশো বা দু হাজারের নতুন নোট না আসায় সমস্যায় ব্যবসায়ীরা

আমার বাংলা ডেক্স, বর্ধমান : পাঁচশো ও হাজার টাকার নোট বাতিলের পরে যে পরিস্থিতির শিকার হয়েছেন সাধারণ মানুষ সে হয়রানি থেকে  মুক্তি পায়নি বর্ধমানের মানুষজন।বৃহস্পতিবার  এস বি আই থেকে শুরু করে সমবায় ব্যাংক পর্যন্ত কোথাও নতুন পাঁচশো ও দু হাজার টাকার নোট আসেনি। ফলে সাত সকাল থেকে দিনভর লাইনে দাঁড়িয়েও মূল সমস্যা থেকে রেহাই পায়নি কেউ। পাশাপাশি  এদিনও সমস্ত এটিএম বন্ধ থাকায় সরাসরি টাকা তুলতে পারেননি কেউ। ব্যাংকের পাশাপাশি পোস্ট অফিস গুলিতেও একই অবস্থা। সেখানেও নতুন নোট না আসায় সমস্যায় পড়েছেন গ্রাহকেরা। এদিন কোর্ট কম্পাউন্ডের কাছে  এস বি আইয়ের মেন শাখায় সকাল দশটার সময় গিয়ে দেখা গেল ব্যাংকের কোলাপ্সিবল গেট থেকে লম্বা লাইন পৌঁছে গেছে প্রায় দুশো মিটার। রীতিমতো সেখানে নিরাপত্তারক্ষীরা দাঁড়িয়ে আছেন। তবে যেহেতু টাকা তোলার প্রশ্ন তাই লাইন ছিল সুশৃঙ্খলভাবে। গ্রাহকেরা জানালেন, এখানে এখনো নতুন পাঁচশো ও হাজার টাকার নোট দেওয়া হচ্ছে না। বদলে দশ টাকা কুড়ি টাকা, পঞ্চাশ কিংবা একশো টাকার বান্ডিল ধরিয়ে দেওয়া হচ্ছে।  পুরোনো পাঁচশো ও হাজার টাকা জমা দেওয়ার ক্ষেত্রে কোনো উর্ধসীমা না থাকলেও বদলের ক্ষেত্রে চার হাজার টাকা পর্যন্ত দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু সেই একই অবস্থা নতুন কোনো পাঁচশো বা  দু হাজার টাকার নোট নয় নিতে বাধ্য হচ্ছেন সেই খুচরো দশ ও কুড়ি টাকার বান্ডিল। এই নিয়ে গ্রাহকদের মধ্যে চরম খক্সোভ দেখা দিয়েছে।  একই পরিস্থিতি অন্যান্য রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ব্যাংক ও সমবায় ব্যাংকেও। হেড  পোস্ট অফিসে গিয়েও খোঁজ নিয়ে দেখা গেল সেখানেও নতুন নোট আসেনি। এস বি আই ব্যাংকের গ্রাহক শিবু দে, সুমন রায় ও সনাতন মাঝিরা একপ্রকার ক্ষোভ উগরে দিয়েই বললেন আমরা সংবাদপত্রে পাঁচশো ও দু হাজার টাকার নতুন নোটের ছবি দেখেছি। ভেবেছিলাম অন্য কোনো ব্যাংকে না পেলেও স্টেট ব্যাংকে গেলে নতুন নোট হাতে পাবো। কিন্তু কাউন্টারে ঘোষণা করে দিয়েছে নতুন নোট আসেনি তাই দেওয়া যাচ্ছে না। গ্রাহকদের ধৈর্য হারালে চলবে না এলেই দিয়ে দেওয়া হবে। তখন এই দশ ও কুড়ি টাকার বান্ডিল হাতে ধরিয়ে দিচ্ছেন ব্যাংক কর্মীরা। পাশাপাশি বিভিন্ন ব্যাংকে লিংক না থাকায় দীর্ঘ সময় লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে হচ্ছে গ্রাহকদের। যারা এক লক্ষ টাকা বা দু লক্ষ টাকা জমা দিতে এসে ফর্ম ফিলাপ করতে গিয়ে হয়রানির স্বীকার হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

Leave a Reply