পালসিট টোল প্লাজায় মোতায়েন করা হলো সেনাবাহিনী, কারণ নিয়ে ধোঁয়াশা

এবি ওয়েব ডেক্স, বর্ধমান : বর্ধমানের পালসিটের দু নম্বর জাতীয় সড়কে টোল প্লাজ এলাকায় মোতায়েন করা হলো সেনা বাহিনী। বর্ধমান থেকে কলকাতা গামী কিংবা কলকাতা থেকে দুর্গাপুর আসানসোল গামী সমস্ত চারচাকা গাড়ি, বাস ট্রাক সহ অন্যান্য যানবাহনকে চেকিং চালাচ্ছে সেনাবাহিনী। কিন্তু কি কারণে এই স্পেশাল চেকিং সে সম্পর্কে মুখ খুলতে নারাজ সেনা বাহিনী। তবে সূত্রের খবর যুদ্ধের সময় প্রচুর যানবাহনের প্রয়োজন হয়। ফলে জাতীয় সড়কের উপর দিনে সারাদিনে কত ও কি ধরনের গাড়ি যায় , কীভাবে তারা যাতায়ত করছে, গাড়িতে করে কি পন্য সামগ্রী নিয়ে যাওয়া হচ্ছে সবই খাতায় লিপিবদ্ধ করছে সেনারা। সংবাদ মাধ্যমকে কাছে ঘেঁষতে দেয়নি, ছবি তুলতেও নিষেধ করেছেন তারা। আগামী ২ ডিসেম্বর রাত পর্যন্ত তাদের এই তল্লাশি চলবে বলে জানা গেছে। এদিন রাতে পালসিট টোল প্লাজায় গিয়ে দেখা যায় প্রতিটি গেটেই সেনা দাঁড়িয়ে আছে। বাস বা লরি বা অন্য গাড়ি গুলিকে দাঁড় করিয়ে তারা পরীক্ষা নিরীক্ষা চালিয়ে যাচ্ছেন। জানা গেছে পানাগড়ের সেনা ক্যাম্প থেকে ৩০ জন সেনা কর্মী এই দায়িত্ব সামলাচ্ছেন। এদিন গাড়ি চেকিং এর পরে তারা গাড়িতে একটা করে স্টিকার সাঁটিয়ে দিচ্ছেন। পালসিট টোল প্লাজার দায়িত্বে থাকা প্রীতম চট্টোপাধ্যায় জানান, আমাদের কাছে আমাদের কাছে জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষ একটা চিঠি দিয়ে জানিয়েছেন পালসিট টোল প্লাজায় সেনা বাহিনীর কর্মীরা গাড়ির উপরে একটা সার্ভে করবেন। তাই তাদের সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে। তবে টোল প্লাজা সূত্রে জানা গেছে যেহেতু সেনাবাহিনী প্রতিটা গাড়ি চেকিং এর পরে স্টিকার সাঁটিয়ে দিচ্ছে পাশাপাশি গাড়ির নাম্বার লিখে রাখছে। ফলে একই গাড়ি দুবার করে গুনতি হবে না। এছাড়া যুদ্ধের সময় প্রচুর গাড়ির প্রয়োজন হয়। তাই সহজে জাতীয় সড়ক থেকে কত গাড়ি পাওয়া যেতে পারে তার একটা হিসেবও তারা পেয়ে যাবে।

Leave a Reply