বর্ধমান জেলা জুড়ে পালিত হলো কোরবানি, কড়া পুলিশি নিরাপত্তা

উৎসাহ উদ্দীপনার সাথে বর্ধমান জেলায় পালিত হলো বকরিদ । শহরের মূল অনুষ্ঠানটি হয় বর্ধমানের টাউন হলে। এছাড়া আসানসোল, দুর্গাপুর, রানীগঞ্জ, কুলটি সহ বিভিন্ন এলাকায় কোরবানি পালিত হয়। এদিন যাতে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেই জন্য সকাল থেকেই ছিল পুলিশি তৎপরতা ।

এদিন নামাজ শেষে অনেকেই যান কবরস্থানে। স্বজনকে স্মরণ করার জন্য। এদিন মুসলিম সম্প্রদায়ের লোকেরা কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে একে অপরের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

raniganj_-ronai-a-nawaz-4

আজ থেকে প্রায় চার হাজার বছর আগে আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের জন্য পয়গম্বর হজরত মহম্মদ নিজের ছেলে হজরত ইসমাইলকে কোরবানি করার উদ্যোগ নিয়েছিলেন। কিন্তু দেখা যায় ইসমাইলের পরিবর্তে একটা দুম্বা কোরবানি হয়ে যায়। হজরত ইব্রাহিমের সেই ত্যাগের কথা স্মরণ করে মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষেরা জিলহজ মাসের ১০ তারিখে আল্লাহর অনুগ্রহ লাভের জন্য পশূ কোরবানি করে থাকেন।

এদিন বর্ধমানের খাগড়াগড়েও কোরবানি পালিত হলেও  উৎসাহে কিছুটা ভাটা ছিল।

 

Leave a Reply