ভয়াবহ আগুনে ভস্মীভূত কারখানার দুটো ইউনিট

এবি ডেক্স, বর্ধমান  : ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ভস্মীভূত হয়ে গেল স্পঞ্জ আয়রন কারখানার দুটি ইউনিট। বৃহস্পতিবার বিকেল নাগাদ ঘটনাটি ঘটেছে বর্ধমানের পালিতপুরের শ্যাম ফেরো নামে একটি বেসরকারি স্পঞ্জ আয়রন কারখানায়।খবর পেয়ে দমকলের ছটা ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করে। ততক্ষণে কারখানার দুটো ইউনিটের বেশীরভাগ অংশ পুড়ে ছাই হয়ে যায়।  কারখানার শ্রমিকদের অভিযোগ দমকলকে খবর দেওয়ার ৪৫ মিনিট পরে তারা আসে। দমকলের প্রাথমিক অনুমান শর্ট শার্কিটের কারণেই এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে।

burdwan-factory-fire_photo-1

স্থানীয় ও কারখানা সূত্রে জানা গেছে আজ বিকেল নাগাদ পালিতপুর সংলগ্ন  শ্যাম ফেরো নামে একটা বেসরকারি স্পঞ্জ আয়রন কারখানার এক নম্বর ইউনিটে শর্ট শার্কিটের কারণে আগুন লাগে। ওই ইউনিটের ট্রান্সফর্মারের নীচে  বেশ কিছু  তেল ছিল। ফলে ট্রান্সফর্মারে বিস্ফোরণ হোওয়ার পরেই  মুহুর্তেই আগুন লেগে যায়। দ্রুত আগুন দু-নম্বর ও তিন নম্বর ইউনিটে ছড়িয়ে পড়ে। এদিকে দমকলে খবর দেওয়া হলে দমকলের ছটা ইঞ্জিন প্রায় ৪৫ মিনিট দেরি করে আসে বলে অভিযোগ শ্রমিকদের। ফলে আগুনের লেলিহান শিখা বাড়তে থাকে। আগুনের গ্রাসে চলে যায় ওই কারখানার লোহার রেলিং গুলি। সেগুলি ভেঙে ভেঙে নিচে পড়তে থাকে। জানা গেছে ওই কারখানার মোট ছটা ইউনিট আছে।  কারখানায়  কয়েকশো  শ্রমিক কাজ করেন বলে জানা গেছে। এদিকে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের জেরে দিশেহারা হয়ে শ্রমিকেরা ছুটোছুটি করতে থাকেন। আগুনের তাপে অসুস্থ হয়ে পড়েন বেশ কিছু শ্রমিকও। তাদের উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসার পরে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। আগুন নেভানোর কাজ চললেও এখনো আগুন নিয়ন্ত্রণে আসেনি।কারখানার কর্মী বাপি রায় বলেন শর্ট শার্কিটের কারণেই আগুন লেগেছে। এদিকে অগ্নিকান্ডের ঘটনার পর থেকেই দেখা মেলেনি কারখানা কর্তৃপক্ষের।

 

আট দশটা গ্রামের মানুষ কারখানা থেকে কালো ধোঁয়া বের হতে দেখেন এরপরেই তারা দেখতে পান ওই কারখানা থেকে আগুনের লেলিহান শিখা বের হচ্ছে।

Leave a Reply