মিষ্টি হাবের জন্য ফের জমি চিহ্নিত করলো প্রশাসন

 

মিষ্টি হাব নিয়ে প্রস্তাবিত জমি বাতিলের  বাহাত্তর ঘন্টার মধ্যে  ফের নতুন জমি চিহ্নিত করলো জেলা প্রশাসন। শনিবার দুপুরে বাম চাঁদাই পুরে আলিশা মৌজাতেই পেট্রোল পাম্পের পাশেই হাফ একর জমি পরিদর্শনে গিয়ে জেলাশাসক সৌমিত্র মোহন , সভাধিপতি দেবু টুডু জমি চিহ্নিত করেন। তারা জানান আগামী সোমবার থেকেই এই জমিতে মিষ্টি হাব তৈরির কাজ শুরু হয়ে যাবে। এই জমির দাবিদার একটি আদিবাসি পরিবার লক্ষীমণি হেমব্রম।  যদিও তারা সেই জমি  চারপুরুষের দখলি জমি বলেই তিনি বলেছেন। এবং এই জমি হস্তান্তরের জন্য ক্ষতিপূরণ দাবি করেছেন।ক্ষতিপূরণ অবশ্য দিয়ে দেওয়া হবে বলেই সভাধিপতি তাদের আশ্বস্ত করেছেন। এদিকে অনাময় হাসপাতাল সংলগ্ন বর্ধমান উন্নয়ন সংস্থা সাড়ে দশ একর  জমি যেখানে মিষ্টির হাব হওয়ার কথা ছিল তা কি করে ফেরত দেওয়া যায় তা নিয়ে চিন্তিত হয়ে পড়েছে জেলা প্রশাসন।

1

মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর নির্দেশে আলিশা মৌজার অনাময় হাসপাতাল সংলগ্ন জমি ফেরতের নির্দেশ দেওয়ার পরে সেখানকার জমিদাতারা জমি ফেরতের জন্য ফের মুখ্যমন্ত্রীর দ্বারস্থ হওয়ার চিন্তাভাবনা করছেন। আলিশার  এই জমি থেকেই দুশো মিটারের মধ্যে একই মৌজায় পেট্রোল পাম্পের পাশে দুর্গাপুর এক্সপ্রেস ওয়ে সংলগ্ন জমি চিহ্নিত করতে শনিবার যান জেলাশাসক ও সভাধিপতি। জমি পরিদর্শনের পরে সভাধিপতি দেবু টুডু জানান আমরা যে জমি এখন চিহ্নিত করলাম তার পরিমাণ হাফ একর । এটি সরকারি খাস জমি। দীর্ঘদিন পরে থাকার জন্য আদিবাসীরা এই জমি ব্যবহার করতেন। দীর্ঘদিন আদিবাসীদের দখলে থাকায় তাদের সাথে আমাদের কথা হয়েছে। তারা বলেছেন মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নের প্রকল্প মিষ্টি হাব বর্ধমানেই হবে। জমি জটের অসুবিধা হচ্ছে বলে আমরা জানতে পেরেছি।  তাই আমরা জায়গা দেবো মানুষের স্বার্থে বর্ধমানের স্বার্থে।

2

তিনি বলেন মমতা ব্যানার্জীর স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিতে এগিয়ে এসেছেন আদিবাসী ভাইয়েরা। আমরা ওদের অন্য জায়গা দেওয়ার ব্যবস্থা করছি। ওদের অর্থনৈতিক উন্নয়ন হোক আমরা চাই। তাদের ক্ষতিপূরণও দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন সভাধিপতি।  জেলাশাসক ড সৌমিত্র মোহন  বলেন নতুন করে মিষ্টি হাবের জন্য জায়গা চিহ্নিত করা হয়েছে। প্রায় হাফ একর জায়গার উপরে কাজ শুরু হবে সোমবার থেকে।

Leave a Reply