মুখ্যমন্ত্রী পাগলামি করছেন তাই প্রধানমন্ত্রীর ধমক খাচ্ছেন কটাক্ষ দিলীপ ঘোষের

আমার বাংলা ডেক্স, বর্ধমান : মুখ্যমন্ত্রী পাগলামি করছেন উলটো পালটা শব্দ প্রয়োগ করছেন তাই ধমক খাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে । বর্ধমানের কানাইনাটশালে সেচ বাংলোতে এসে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে এই ভাবেই কটাক্ষ করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। দেশ জুড়ে পাঁচশো ও হাজার টাকার নোট বাতিলের পরে ব্যাংক ও এটিএম বন্ধ থাকায় চরম দুর্ভোগে পড়েছেন মানুষেরা। ফলে মানুষের ভোগান্তি খতিয়ে দেখতে পথে নেমে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় খোঁজ খবর নিয়েছেন। পরে  প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে বার্তা দিয়েছেন জাপানে বসে তিনি হুমকি দিচ্ছেন ৩০ ডিসেম্বরের পরে তিনি দেখে নেবেন, কি করবেন সেনা নামিয়ে গুলি করবেন? এক শতাংশ কালোবাজারির জন্য ৯৯ শতাংশ মানুষকে বিপাকে ফেলা হচ্ছে।

1

এদিকে প্রধানমন্ত্রী জাপান থেকে দেশবাসীকে ধমকাচ্ছেন সেই দাবিকে খন্ডন করে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ পালটা বিবৃতি দিলেন দেশ বাসীকে নয় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ধমকাচ্ছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়  যে ধরনের পাগলামি শুরু করে শব্দ প্রয়োগ করছেন সরকার ও প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে সেটা কোনো মুখ্যমন্ত্রীর পক্ষে শোভা পায় না। এরপরেই তিনি বলেন এটা নিয়ে আমরা ভাবি না কারণ ওনার মুখের ভাষাই এই রকমের সেটা সবাই জেনে গেছে। মুখ্যমন্ত্রীর সমালোচনা করে বলেন উনি যেখান থেকে এসেছেন সেখানে এই ভাষাই চলে। আসলে সারদার টাকা ওনাদের কাছে আছে। কোথায় আছে সেটা আমাদের জানা নেই। তিরিশ হাজার কোটি টাকার যে দুর্নীতি হয়েছে তার বেশিরভাগই আছে তাদের কাছে। তাইতো গোরু ছাগলের মতো অন্য দলের পঞ্চায়েত, মিউনিসিপ্যালিটি বিধায়কদের পালের পর পাল কিনে নেওয়া হচ্ছে ।তারপর তৃণমূলে ঢুকিয়ে দেওয়া হচ্ছে।  তবে কিছু টাকা বাংলাদেশ সহ বাইরে গেলেও বেশীর ভাগ টাকা এখানেই আছে। সেই টাকা উদ্ধার হবেই। ধনজন যোজনার অ্যাকাউন্টে টাকা রাখা প্রসঙ্গে তিনি বলেন মূলত ওই অ্যাকাউন্ট খোলা হয়েছে গরীব মানুষদের জন্য। সেই সব অ্যাকাউন্ট চেক করা হবে। হঠাত করে সেই অ্যাকাউন্ট গুলোতে বেশি টাকা জমা রাখা হলেই তদন্ত শুরু হবে।

Leave a Reply