ছাত্র মৃত্যুর সঠিক তদন্ত চেয়ে আন্দোলনে নামলো বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরা

রিন্টু ব্রহ্ম, বর্ধমান : যাদবপুরের পরে এবার বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়। মিতার পরে এবার রেজাউল। এবার ছাত্র মৃত্যুর তদন্ত চেয়ে উত্তপ্ত হতে চলেছে বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়। মঙ্গলবার বিকেল  নাগাদ গোলাপবাগ ক্যাম্পাসে  সহপাঠীর মৃত্যুর সঠিক তদন্ত চেয়ে আন্দোলনে নামে বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরা। তারা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বিক্ষোভও দেখায়।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে  গত ৩ ডিসেম্বর বর্ধমানের সড়াই টিকর এলাকায় শেখ রেজাউল নামে এক ছাত্রের দেহ উদ্ধার হয়। সড়াইটিকর এলাকায় একটি কবর খানার কাছে গলায় মাফলারের ফাঁস লাগানো অবস্থায় তার দেহটি ঝুলছিল। স্থানীয়রা সেই দেহ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশের প্রাথমিক ধারণা ঘটনাটি আত্মহত্যার ঘটনা হতে পারে। রেজাউল বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের এম এ পার্ট-২ এর ছাত্র ছিল। পাশাপাশি বর্ধমান থানায় সে সিভিক ভলেন্টিয়ারের কাজেও যুক্ত ছিল। মৃতের দাদা শেখ আলাউদ্দিন দাবি করে তার ভাইকে খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাদের পরিবার এটাকে আত্মহত্যার ঘটনা বলে মানতে নারাজ।

burdwan-university-agitation_photo_pulak_burdwan_06-1

গত কাল সোমবার বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরা রেজাউলের পরিবারের সাথে দেখা করতে আসে। এরপরে আজ মঙ্গলবার ছাত্রছাত্রীরা বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে শোকপালন করে। পরে বিকেলের দিকে নিজেরা আলোচনার পরে তাদের বন্ধুর মৃত্যুর সঠিক কারণ ও নিরপেক্ষ তদন্তের দাবি করে পোস্টার নিয়ে মিছিল করে। এরপরে তারা বর্ধমান থানায় গিয়ে তদন্ত কি অবস্থায় আছে সেই বিষয়ে খোঁজ খবর নেয়। ছাত্র সংসদের সাধারন সম্পাদক আমিনুল ইসলাম বলেন , আমরা আমাদের বন্ধুর মৃত্যুর সঠিক  তদন্ত চাই । আমাদের  মনে হচ্ছে ওকে খুন করা হয়েছে ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী মৌমিতা  কর্মকার বলেন ,” আমরা রেজাউলের মৃত্যুর দ্রুত  তদন্ত চাই। আগামী কাল আমরা  আরও বৃহত্তর আন্দোলনের ডাক দিয়েছি । সকল ছাত্র ছাত্রীদের বিশ্ববিদ্যালয়ে হাজির হতে বলা হয়েছে ।

Leave a Reply