আর্থিক সংস্থার কয়েক লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়ে আন্দামানের পুলিশের জালে ধরা পড়লো কাঁকসার যুবক

 সোমা দাস, কাঁকসা

আর্থিক সংস্থার কয়েক লক্ষ টাকা  ব্যাক্তিগত অ্যাকাউন্টে হাতিয়ে নিয়ে চলে আসায় আন্দামান পুলিশের হাতে ধরা পড়লো কাঁকসার এক ব্যাক্তি। পুলিশ জানিয়েছে ধৃতের নাম রণজিৎ মন্ডল।ধৃতকে আজ দুর্গাপুর মহকুমা আদালতে তোলার পরে ট্রানজিট রিমান্ডে আন্দামান নিয়ে যায় সেখানকার পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে কাঁকসার বনকাটি এলাকার এগারো মাইলের বাসিন্দা রণজিৎ আন্দামানে ডেস্টো নামে একটি আর্থিক সংস্থায় কাজ করতেন। মাস কয়েক আগে তিনি কাজ ছেড়ে পালিয়ে আসেন। কিন্তু তার ব্যাক্তিগত অ্যাকাউন্টে ওই আর্থিক সংস্থার প্রায় ১৫ লক্ষ টাকা জমা পড়ে বলে জানা গেছে। পুলিশ সূত্রে খবর সাইবার ক্রাইমে যুক্ত থাকার অভিযোগে ইনফেরমেশন টেকনোলজি আইন অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে আন্দামানের বিলিগাও থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। এরপরেই আন্দামানের বিলিগাও থানার পুলিশ ঘটনার তদন্তে নেমে রনজিতের সন্ধান পায়।তারা জানতে পারে সে কয়েক মাস আগে কাজ ছেড়ে চলে গেলেও কয়েক লক্ষ টাকা সে হাতিয়ে নিয়ে চম্পট দেয়। আন্দামানের বিলিগাও থানার পুলিশ ভি কে মালাইয়ার নেতৃত্বে তিন সদস্যের  কাঁকসা থানার পুলিশের সাথে যোগাযোগ করে। সেইমতো পুলিশ গতকাল গভীর রাতে কাঁকসা থানার পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে বনকাটি এলাকায় হানা দেয়।বুধবার ধৃতকে দুর্গাপুর মহকুমা আদালতে তোলা হলে ট্রানজিট রিমান্ড চায় আন্দামানের পুলিশ। সেই মতো ট্রানজিট রিমান্ডের পরে তাকে আন্দামান নিয়ে যাওয়া হয়। রনজিতের সাথে আর কার যোগসাজস রয়েছে তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

Leave a Reply