সেইলের বিলগ্নিকরণের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে রিলে অনশন আজ দ্বিতীয় দিনে

দীপিকা সরকার, দুর্গাপুর

রাষ্ট্রায়ত্ত সেইলের অ্যালয় স্টিল প্ল্যান্ট বিলগ্নিকরনের সিদ্ধান্তের জেরে তপ্ত হচ্ছে দুর্গাপুরের শ্রমিক মহল। প্রতিবাদে এবার অনশনে বসল তৃণমূল শ্রমিক সংগঠন। বুধবার  থেকে অ্যালয় স্টিল প্লান্টের গেটের সামনে রিলে  অনশন শুরু করে তৃণমূল শ্রমিক সংগঠন।

প্রসঙ্গত, কেন্দ্রীয় ইস্পাত মন্ত্রক লোকসভায় সালেম স্টিল, ভদ্রাবতী স্টিলের সঙ্গে দুর্গাপুরের অ্যালয় স্টিল বিলগ্নিকরনের সিদ্ধান্ত ঘোষনা করে। আর তারপরই আতঙ্কের কালো মেঘ ঘনিয়ে আসে শ্রমিক মহলে।  প্রতিবাদে সরব হয়েছে ডান,বাম ও গেরুয়া পরিবারের শ্রমিক সংগঠন। বুধবার তৃণমূল শ্রমিক সংগঠনের পক্ষে কারখানা গেটে রিলে অনশন করে। ৮ জন করে ৬৪ জন শ্রমিক অনশনে থাকবে। আপতত তিনদিন রিলে অনশন চলবে বলে জানিয়েছে  তৃণমূল শ্রমিক সংগঠন। অতীতে দুর্গাপুরে আগেই বন্ধ হয়েছে এমএএমসি,  এইএফসিআই, বিওজিএল এর মতো রাষ্ট্রায়ত্ত কারখানা। বেকার হয়েছে হাজার হাজার শ্রমিক। এখন অ্যালয় ষ্টিলকে বিলগ্নবিকরনের সিদ্ধান্তে স্বাভাবিকভাবে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে শিল্পশহরবাসীর। দুর্গাপুর অ্যালয় ষ্টিল প্ল্যান্টের তৃণমূল শ্রমিক সংগঠনের সাধারন সম্পাদক অশোক কুন্ডু জানান,” এটা রাজ্যের প্রতি কেন্দ্রের প্রতিহিংসাপরায়ন আচরন। সালেম যেখানে ৩০০ কোটি, ভদ্রাবতী স্টিল ১২০ কোটি লোকসানে। সেখানে অ্যালয় স্টিলের লোকসানের বহর কমে ৪২ কোটিতে এসেছে। তারপরও এধরনের সিদ্ধান্ত,  মোদী সরকারের রাজ্যের রাষ্ট্রায়ত্ত আরও একটি কারখানাকে বন্ধ করার চক্রান্ত। তার প্রতিবাদে আন্দোলন জারি থাকবে। প্রয়োজনে আমরন অনশন করব।”

Leave a Reply