দুর্গাপুরে শ্রমিকদের কাজে ঢুকতে বাধার অভিযোগ

দীপিকা সরকার, দুর্গাপুর

ভিন জেলার বাসিন্দা তকমা জোটায় কর্মস্থলে ঢুকতে বাধা দেওয়া হলো শ্রমিকদের। অভিযোগ  প্রায় সাড়ে চার’ শ ঠিকাশ্রমিককে  কাজে যোগ দিতে দেওয়া হল না। শিল্পতালুকে বুধবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে শিল্পনগরী দুর্গাপুরের রাতুড়িয়া-অঙ্গদপুর শিল্পতালুকে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা।  অভিযোগের তীর স্থানীয় তৃণমূলে কংগ্রেসের বিরুদ্ধে।

এদিন শিল্পতালুকের রাতুড়িয়া ও মায়াবাজার এলাকায় ‘বহিরাগত’দের কারখানায় ঢুকতে বাধা দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। বিক্ষোভকারী মায়াবাজার এলাকার  সঞ্জয় পাশোওয়ান, অদেশ চৌধুরী প্রমুখ একরাশ ক্ষোভ উগরে জানান,” শিল্পতালুকের ১৩ হাজার ঠিকাশ্রমিকের মধ্যে ১১ হাজার বহিরাগত।” ক্ষুব্ধ যুবকরা জানান,”  কারখানার দুষনের শিকার আমরা, আর কাজ পাচ্ছে বহিরাগতরা। এটা হতে পারে না। স্থানীয়দের কারখানার কাজে আগ্রাধিকার দিতে হবে।”  এদিকে ঘটনার জেরে কারখানা গুলিতে উৎপাদনে ব্যাঘাত ঘটে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় দুর্গাপুর কোকওভেন থানার পুলিশ। সিটু নেতা পঙ্কজ রায় সরকার জানান,” গোটা ঘটনায় তৃণমূলের মদত রয়েছে। আমারা শিল্প বাঁচাওয়ের লড়াই করছি। আর রাজ্যের শাসকদল এলকাগত কারনে শ্রমিকদের কর্মচ্যুত করছে। এলাকায় দাঙ্গা লাগানোর চেষ্টা করছে।” যদিও অভিযোগ অস্বিকার করে তৃণমূল শ্রমিক নেতা অশোক দত্ত জানান,” ঘটনাটি কখনই তৃণমূল সমর্থন করে না। স্থানীয়দের দাবী যুক্তিসঙ্গত কিন্তু আন্দোলনের পদ্ধতিকে সমর্থন করছি না।

Leave a Reply